বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৫৩ অপরাহ্ন

প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশ ও ৬ দফা দাবি”

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮.১৯ পিএম
  • ২৮ বার পঠিত

 বিনোদন প্রতিবেদক,আল সামাদ রুবেলঃ সাম্প্রতিক ঘটনা প্রবাহের প্রেক্ষাপটে শিল্পীর প্রতি সকল প্রকার অন্যায় আচরণ বন্ধের দাবিতে শাহবাগ জাতীয় যাদুঘরের সামনে উপস্থিত ‘শিল্পী সমাজ’ তথা আয়োজকরা ৬টি দাবি তুলে ধরেন। আয়োজকরা জানান, বাংলাদেশের শিল্প-সংস্কৃতির মানুষেরা শিল্পচর্চার পাশাপাশি বিভিন্ন সময়ে দেশের প্রয়োজনে অপশক্তির বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। শিল্প-সংস্কৃতির মানুষের প্রতিবাদের ইতিহাস অনেক দীর্ঘ। আজকের বাস্তবতায়- এই মানুষরা প্রতিবাদ করতে এবং পথে নামতে বাধ্য হচ্ছে। আমরা অত্যন্ত দুঃখের সাথে লক্ষ্য করছি যে, বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরাপ করে রুদ্ধ করা হচ্ছে শৈল্পিক মতপ্রকাশের অধিকার। এক অদৃশ্য শিকলে আমাদের বেঁধে ফেলা হচ্ছে। আমরা আরও লক্ষ্য করছি- স্যোসাল মিডিয়া এবং প্রশাসনের কারো কারো দ্বারা বিভিন্ন সময় শিল্পীকে হেয় করা হচ্ছে। বিভিন্ন আইনী প্রক্রিয়া, মোরাল পুলিশিং, সাইবার বুলিং, মিডিয়া ট্রায়াল ইত্যাদির মাধ্যমে শিল্পী-সমাজকে নির্মম ও কুৎসিত বাস্তবতার দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। যার ফলে অনেকেরই হারাতে হচ্ছে সামাজিক মর্যাদা। স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে এমন প্রতিকূলতা আমাদের চিন্তারও অতীত।

 

আমরা অবিলম্বে এই পরিস্থিতির অবসান চাই। প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশ থেকে যে ৬টি দাবি করা হয়- ১। শিল্প ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপ এবং হয়রানি অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। শিল্প-সংস্কৃতির স্বাভাবিক গতিপ্রবাহকে বাধাগ্রস্থ করা যাবে না। ২। কোনো অনিয়মতান্ত্রিক আইনী প্রক্রিয়ায় যেন শিল্পীদের হেয় করা না হয়। ৩। আর কোনো শিল্পীকে যেন মোরাল পুলিশিং, সাইবার বুলিং, মিডিয়া ট্রায়ালের শিকার হতে না হয়। ৪। সরকার, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং ব্যক্তি পর্যায় থেকে দায়িত্বশীল আচরণ প্রত্যাশা করছি। ৫। কিছু প্রতিষ্ঠান এবং ব্যক্তি পর্যায়ের বিকৃতির বিরুদ্ধে বিটিআরসির সক্রিয় ভূমিকা কামনা করছি। ৬। তল্লাশী, গ্রেপ্তার এবং রিমান্ড বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া দিক-নির্দেশনার পূর্ণ বাস্তবায়ণ চাই। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন- নাট্যজন মামুনুর রশীদ, নাট্যদল প্রাঙ্গণেমোর’র অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা অনন্ত হীরা, নিমার্তা নোমান রবিন, অনিমেষ আইচ, আহ্বায়ক মোস্তফা মনন, সঞ্চালক অপরাজিতা সঙ্গীতা, সুরভী রায় প্রমুখ। পরে গান, নাটক, আবৃত্তি, নাচের অনুষ্ঠান করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazsongbadsara1
© All rights reserved  2019 songbadsarakkhon
Theme Download From ThemesBazar.Com