রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৪:১৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া,স্ত্রীর আত্মহত্যা ব্র্যাক ব্যাংকের হাই ভ্যালু প্রিমিয়াম সেভারস অ্যাকাউন্ট হোল্ডারদের জন্য ইউনিমার্ট-এ থাকছে বিশেষ সুবিধা প্রান গেল মোটরসাইকেল চালকের, আহত-২ ফরিদপুরের বিভিন্ন আবাসিক হোটেল থেকে ২০ নারী-পুরুষ আটক ময়মনসিংহে জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক রাহাত খানের নেতৃত্বে অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরন ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ ভেঙে যাত্রীবাহী গাড়ি খালে ১০ জনের মরদেহ উদ্ধার রায়পুরে অপহৃত কিশোরী উদ্ধার, গ্রেফতার ২ গৌরীপুরে পিকআপ- সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে ১ জন নিহত নিজস্ব প্রতিবেদক ভোর হতেই লক্ষ্মীপুরে ঝুম বৃষ্টি ! যুবদল নেতাকে যুবলীগের সভাপতি ঘোষণা, কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ

নওগাঁয় ১শ ৩৭ মন ভেজাল গুড়  ধ্বংস,গুড় উৎপাদনকারীকে জরিমানা

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৭ মার্চ, ২০২৩, ৮.৫৬ পিএম
  • ১০১ বার পড়া হয়েছে
নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর মহাদেবপুরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ভেজাল গুড় তৈরি ও বিক্রি করার অপরাধে চার ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারীকে ১৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট ক্যাম্পের স্কোয়াড কমান্ডার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. মাসুদ রানা এবং জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মহাদেবপুর নওগাঁ জেলা কার্যালয়ের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নুসরাত জাহান এর নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে এই জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া বিপুল পরিমাণ ভেজাল গুড় ও উপকরণ জব্দ করা হয়।
মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে র‌্যাব-৫-এর দেওয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে এদিন দুপুর সাড়ে ১২ থেকে ৩টা পর্যন্ত গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে উপজেলার দোহালী এলাকায় ওই চার প্রতিষ্ঠানে ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হয়।
অর্থদণ্ডপ্রাপ্ত ও ভেজাল গুড় ব্যবসায়ীরা হলেন, বদলগাছি উপজেলার দোহালী এলাকার “নেপাল গুড় কারখানা” এর মালিক শ্রী নেপাল চন্দ্র মালী (৪৫), ‘নরেন্দ্র গুড় ঘর’ এর মালিক শ্রী নরেন্দ্র হাজরা (৪২), “সুভাস গুড় ঘর” এর মালিক শ্রী সুভাস চন্দ্র দাস (৩৯) এবং ‘বিধান গুড়ের আড়ৎ’ এর মালিক শ্রী বিধান হাজরা (৫০)।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ওই চার প্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন ধরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ভেজাল গুড় তৈরি ও বিক্রি করে আসছিলেন। এমন গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ভেজাল গুড় ৫ হাজার ৪৯০ কেজি, চিনির শিরা ১৭ হাজার ৪০০ লিটার, মিষ্টির ময়লা শিরা ২ হাজার ১০ লিটার, হাইড্রোজেন ২দশমিক ৫৫০ কেজি, ক্ষতিকর রং সাড়ে ৪ কেজি, স্যাকারিন ৪ কেজি, ফিটকিরি ৫০০ গ্রাম এবং চুন ৫ কেজি জব্দ করা হয়।
পরে উক্ত চার প্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন ধরে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ভেজাল গুড় উৎপাদন ও বিক্রি করতো বলে জনসম্মুখে স্বীকার করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯-এর ৫২ ধারায় নেপাল গুড় কারখানার মালিকের ৪ হাজার টাকা, নরেন্দ্র গুড় ঘর মালিকের ২ হাজার, সুভাস গুড় ঘর মালিকের ৫ হাজার এবং বিধান গুড়ের আড়ৎ এর মালিকের ৬ হাজার সর্বমোট ১৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পরবর্তীতে জব্দকৃত ভেজাল গুড় ও উপকরণসমূহ ধ্বংস করা হয়। এবং জরিমানাকৃত টাকা সরকারি কোষাগারে জমা করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

themesbazsongbadsara1
© All rights reserved © 2022 songbadsarakkhon.com
Theme Download From ThemesBazar.Com