বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১২:৪৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে জাতির উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের পূর্ণ বিবরণ বাংলা বর্ষপঞ্জিতে কাল যুক্ত হবে নতুন বাংলা বর্ষ ১৪২৮  দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেছে ৬৯ জন শেখ হাসিনা সুস্থ্য আছেন বলে জনগণের জন্য কাজ করছেন : খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার নওগাঁর মনছুর বিলে মক্তব ও এতিমখানা সাইনবোর্ড লাগিয়ে সরকারি জায়গা দখল নওগাঁয় জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে মাস্ক ও ক্যালেন্ডার বিতরণ ঠাকুরগাঁও জেলার আখানগর বাজার সংলগ্ন বাড়িতে চেতনা নাশক ঔষধ মিশিয়ে অভিনব কায়দায় দুর্ধর্ষ চুরি স্বাস্থ্যবিধির নামে গণপরিবহনে ভাড়ার নৈরাজ্য আগামীকাল থেকে সিয়াম সাধনা শুরু রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযানে ৩৬ জন গ্রেফতার

বইমেলাকে ঘিরে তিন স্তরে নিরাপত্তা দিবে ডিএমপি

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৬ মার্চ, ২০২১, ৫.৩১ পিএম
  • ৩৩ বার পঠিত

প্রতিবছরই ফেব্রুয়ারি মাস জুড়ে বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান প্রাঙ্গণে অমর একুশে বইমেলার আয়োজন করে বাংলা একাডেমি কর্তৃপক্ষ। মহামারী করোনার প্রাদূর্ভাবের কারণে এবারের বইমেলা এক ভিন্ন সময়ে শুরু হচ্ছে।

বইমেলাকে ঘিরে তিন স্তরে নিরাপত্তা দিবে ডিএমপি। পাশাপাশি মেলাসহ  আশপাশের  সড়কে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। অমর একুশে বইমেলায় তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে মর্মে জানান ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশনস্) কৃষ্ণ পদ রায় বিপিএম(বার), পিপিএম(বার)।

 

মঙ্গলবার (১৬মার্চ) সকাল ১১ টায় অমর একুশে বইমেলার নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অস্থায়ী পুলিশ কন্ট্রোল রুমের সামনে সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান তিনি।

বাংলা একাডেমিকে সাথে নিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ বইমেলায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা দিয়ে থাকে উল্লেখ করে  কৃষ্ণ পদ রায় বলেন, করোনা অতিমারীসহ বিভিন্ন ধরনের ঘটনার প্রেক্ষিতে ভিন্ন সময়ে আমরা এবারের  একুশে বইমেলা শুরু করছি। করোনা অতিমারী বা আবহাওয়া যেমনই থাকুক না কেন প্রতিবছরের ন্যায় এবারও একই ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে।

তিনি বলেন,উন্নয়নমূলক কাজ চলমান থাকায় রাস্তা অনেক সংকীর্ণ হয়েছে। বইমেলায় দর্শনার্থীদের সুষ্ঠুভাবে প্রবেশ ও বাহির করাটা আমাদের কাছে চ্যালেঞ্জ। নিরাপত্তার অংশ হিসেবে প্রতিটি প্রবেশ পথে প্রত্যেক দর্শনার্থীকে আর্চওয়ে দিয়ে মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশ করতে হবে। পুরো বইমেলা এলাকা থাকবে সম্পূর্ণ সিসিটিভির আওতায়।

সন্দেহজনক কোন কিছু দেখলে দেহ তল্লাশী করতে নারী ও পুরুষ পুলিশের টিম থাকবে। একুশে বইমেলায় আগত দর্শনার্থীদের তল্লাশী নিরাপত্তা ব্যবস্থায় আমাদের সাহায্য করার জন্য অনুরোধ করছি। এ মেলা উপলক্ষে পোশাকে ও সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন থাকবে।

তিনি আরো বলেন, এবারের মেলায় দর্শনার্থীদের প্রবেশের জন্য ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউট এর গেট সংযুক্ত হয়েছে। যে সকল দর্শনার্থী সন্ধ্যার পরে মেলায় প্রবেশ করবেন তারা ইন্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউট ও শিখা চিরন্তন গেট ব্যবহার করবেন।

অতিরিক্ত কমিশনার বলেন,করোনা মহামারীর কারণে দর্শনার্থীদের মাস্ক পরে প্রবেশ করতে হবে।

মেলার প্রবেশ পথে সাবান পানি ও স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা থাকবে। কোন প্রাকৃতিক বিপর্য না হলে সবার সহোযোগিতায় নিরাপদ পরিবেশে অমর একুশে বইমেলা উদযাপন করতে পারব।

বইমেলায় প্রকাশকদের ওপর হামলার বিষয়ে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অতীতের ঘটনা মাথায় রেখেই আমরা গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করেছি। কেউ অপরাধমূলক কাজ করছে কি না সে ব্যাপারে আমরা নজরদারি করছি। যথাসময়ে তথ্য পেলে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

তবে মানুষের অনুভূতিতে আঘাত দেয় এমন বই প্রকাশ হচ্ছে কি না সেটাও আমরা খোঁজ রাখছি।

 

এবারের অমর একুশে বইমেলা ১৮ই মার্চ হত ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazsongbadsara1
© All rights reserved  2019 songbadsarakkhon
Theme Download From ThemesBazar.Com