রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৫:২৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া,স্ত্রীর আত্মহত্যা ব্র্যাক ব্যাংকের হাই ভ্যালু প্রিমিয়াম সেভারস অ্যাকাউন্ট হোল্ডারদের জন্য ইউনিমার্ট-এ থাকছে বিশেষ সুবিধা প্রান গেল মোটরসাইকেল চালকের, আহত-২ ফরিদপুরের বিভিন্ন আবাসিক হোটেল থেকে ২০ নারী-পুরুষ আটক ময়মনসিংহে জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক রাহাত খানের নেতৃত্বে অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরন ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ ভেঙে যাত্রীবাহী গাড়ি খালে ১০ জনের মরদেহ উদ্ধার রায়পুরে অপহৃত কিশোরী উদ্ধার, গ্রেফতার ২ গৌরীপুরে পিকআপ- সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে ১ জন নিহত নিজস্ব প্রতিবেদক ভোর হতেই লক্ষ্মীপুরে ঝুম বৃষ্টি ! যুবদল নেতাকে যুবলীগের সভাপতি ঘোষণা, কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ

কাউখালীতে পলিথিন দিয়ে ঘর তৈরি করে বসবাস করছে এক অসহায় দিনমজুর

  • আপডেট সময় সোমবার, ১০ জুন, ২০২৪, ৭.৪৭ পিএম
  • ৯ বার পড়া হয়েছে

 

 পিরোজপুর প্রতিনিধি
মোরা অসহায় মোদের কেউ খোঁজ খবর রাখে না, আক্ষেপ করে কথাগুলো বলেন দিনমজুর ফুয়াদ হোসেন ও তার পরিবার।পিরোজপুরের কাউখালীতে এক অসহায় দিনমজুর পরিবার পলিথিন দিয়ে ঘর তৈরি করে বসবাস করছে। উপজেলার শিয়ালকাঠি ইউনিয়নের দক্ষিণ শিয়ালকাটি গ্রামের ডরের বাড়ির সিকান্দার হাওলাদারের দিনমজুর ছেলে ফুয়াদ হোসেন (৫০) ছোট্ট ঘরটি ঘূর্ণিঝড় রিমালে গাছ পড়ে সম্পূর্ণ ঘরটি বিধস্ত হয়ে পড়েছে। এখন থাকার মত তাদের কোন স্থান নেই। কোন মতে একটি ছোট ঘর তৈরি করে স্ত্রী ও সাত সন্তান নিয়ে কোনমতে দিন যাপন করতেন এই দিনমজুর ফুয়াদ হোসেন। ভাগ্যের পরিহাসে ঘূর্ণিঝড়ে তার থাকার শেষ আশ্রয়টুকু ঘরটিও ভেঙ্গেচুরে চুরমার হয়ে গেছে। কোনমতে অর্ধ হারে অনাহারে দিন কাটাচ্ছে এই দিনমজুর পরিবারটি। অসহায় ফুয়াদ হোসেন বলেন, আমার সংসারে স্ত্রী ও সাত ছেলে মেয়ে রয়েছে। দুই মেয়ে স্থানীয় জোলাগাতি ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় ষষ্ঠ ও পঞ্চম শ্রেণীতে পড়ে, দুই ছেলে স্থানীয় ফলোইবুনিয়া নূরানী মাদ্রাসায় লেখাপড়া করে। ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়া খরচ চালাতে আমাকে খুব হিমশিম খেতে হচ্ছে। মানুষের বাড়িতে যেদিন কাজ করতে পারি সেদিন সংসারে কোনমতে খাবার খেতে পারি। কাজ না করলে ঘরের চুলা বন্ধ থাকে। এই অভাবের সংসারে কিভাবে ঘর মেরামত করে বসবাস করব। আমার মাত্র ৬ শতাংশ জায়গা রয়েছে, সরকার যদি ঘর তৈরি করে দিত তাহলে ছেলেমেয়ে নিয়ে নিরাপদে থাকতে পারতাম।তাই কোন সহযোগিতা না পেয়ে মানুষের কাছে চেয়ে পলিথিন দিয়ে ঘর তৈরি করে ঝুঁকির ভিতরে বসবাস করছি। দিনমজুর ফুয়াদ হোসেন ও তার স্ত্রী মানসুরা বেগম আক্ষেপ করে বলেন মোরা অসহায় মোদের কেউ খোঁজ খবর রাখে না, সবাই খোঁজ খবর রাখে বড়লোকদের। ঘূর্ণিঝড়ে মাত্র ১০ কেজি চাল, এক কেজি ডাল, ২ কেজি আলু ও এক কেজি তেল পাইছি। স্থানীয় মুরুব্বী ফজলুর শিকদার ও বাবুল হাওলাদার বলেন এই অসহায় পরিবারটি খুবই কষ্টের ভিতর দিন যাপন করছে। স্থানীয় মেম্বার রনি জানান, আমি ক্ষতিগ্রস্ত ফুয়াদ হোসেনের বাড়িতে গিয়েছি এবং বাস্তবে অসহায় পরিবারটির ঘর উঠাবার কোন তৌফিক নেই। এ ব্যাপারে শিয়ালকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গাজী সিদ্দিকুর রহমান বলেন, আমি স্থানীয় ইউপি সদস্যের মাধ্যমে ওই পরিবারটির খোঁজখবর নিয়েছি এবং ঘরের তালিকা তৈরি করেছি যতদূর সম্ভব সহযোগিতা করব।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

themesbazsongbadsara1
© All rights reserved © 2022 songbadsarakkhon.com
Theme Download From ThemesBazar.Com