সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
বিশ্বকাপের সুপার এইটের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ২১ রানে হারিয়েছে আফগানিস্তান সারাদেশে বিষধর সাপ রাসেলস ভাইপারের উপদ্রব স্বাস্থ্যকেন্দ্র অ্যান্টি-ভেনম মজুদের নির্দেশ পবিত্র হজ পালন শেষে গত বৃহস্পতিবার থেকে দেশে ফেরা শুরু করেছেন হাজিরা দেশের প্রতিটা অর্জনে আওয়ামী লীগের অবদান রয়েছে : প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণ কোরিয়ায় যৌথ সামরিক মহড়ায় মার্কিন বিমানবাহী রণতরী সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে প্রতিহত করাই আওয়ামী লীগের আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ : সেতুমন্ত্রী সোনালী ব্যাংকের পরিচালক পদ থেকে এনবিআর সদস্য মতিউর অপসারিত আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন প্রধানমন্ত্রীর সালথায় বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস এর কমিটি গঠন ও যোগদান সভা অনুষ্ঠিত  কাউখালীতে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ

যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোনায়েম মুন্না রিমান্ডে

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩, ৬.১৩ পিএম
  • ১৫৪ বার পড়া হয়েছে

রামপুরা থানায় করা নাশকতার মামলায় যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোনায়েম মুন্নার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (৫ আগস্ট) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শেখ সাদীর আদালত শুনানি শেষে রিমান্ডের আদেশ দেন।

এরআগে রামপুরা থানা পুলিশ তার ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আসামির পক্ষে তার আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে এর বিরোধিতা করা হয়। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তার দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

এদিকে সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ঢাকা আইনজীবী সমিতির ভবনের দ্বিতীয় তলায় সংবাদ সম্মেলন করেন মুন্নার আইনজীবীরা।

সংবাদ সম্মেলনে মুন্নার আইনজীবী ও কেন্দ্রীয় যুবদলের আইন বিষয়ক সম্পাদক নিহার হোসেন ফারুক বলেন, গত ৮ মার্চ বিনা পরোয়ানায় আবদুল মোনায়েম মুন্নাকে গ্রেপ্তার করে ডিবি পুলিশ। এরপর শাহজাহানপুর থানার মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে রিমান্ডে নেওয়া হয়। সে মামলায় জামিন পেলেও একের পর এক ৫টি মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। তবে কোনো মামলার এজাহারেই আবদুল মোনায়েম মুন্নার নাম ছিল না। এমন কার্যক্রমের বিরুদ্ধে আমরা মহামান্য হাইকোর্টে রিট করলে মুন্নাকে এভাবে মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো কেন অবৈধ হবে না মর্মে রুল ইস্যু করে। এছাড়া রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত জেলগেট থেকে এবং এজাহারে নাম না থাকলে কোনো মামলায় গ্রেপ্তার না দেখাতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট বিভাগ। কিন্তু পরবর্তীতে পুলিশ উচ্চ আদালতের এই আদেশ অগ্রাহ্য করে পুনরায় যাত্রাবাড়ী থানার আরেক মামলায় নাম না থাকা সত্ত্বেও তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

তিনি বলেন, এরপর ফের রিট করা হলে হাইকোর্ট বিভাগ পুনরায় একই রুল প্রদান করেন যে, এভাবে মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো কেন অবৈধ হবে না এবং রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত জেলগেট হতে বা কোনো মামলার এজাহারে নাম না থাকলে গ্রেপ্তার না দেখাতে নির্দেশ প্রদান করে। কিন্তু গত ৩০ আগস্ট সব মামলার জামিন নামা দাখিল করলেও যুবদল সেক্রেটারিকে না ছেড়ে ফের এজাহারে নাম না থাকা রামপুরা থানার আরেক মামলায় গ্রেপ্তার দেখাতে আবেদন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

themesbazsongbadsara1
© All rights reserved © 2022 songbadsarakkhon.com
Theme Download From ThemesBazar.Com