বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০৬ অপরাহ্ন

আগামি দিনগুলিতে প্রায় ১০ লক্ষ আফগান শিশুর মৃত্যু হতে পারে: ইউনিসেফ

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০.৩১ এএম
  • ৮ বার পঠিত

আফগানিস্তানে শিশুরা ভাল নেই । তালিবান রাজত্বে তাদের সামনে ঘনিয়ে আসছে বড় বিপদ। অপুষ্টিতে-অনাহারে রোগে আগামি দিনগুলিতে প্রায় ১০ লক্ষ আফগান শিশুর মৃত্যু হতে পারে। বিষয়টি উল্লেখ করে সারা বিশ্বের নজর আকর্ষণ করল ইউনিসেফ।

আফগানিস্তানে খাদ্যসঙ্কট নিয়ে এর আগেও সতর্কবার্তা দিয়েছিল বিভিন্ন সংস্থা। এবার রাষ্ট্রসঙ্ঘের শিশু তহবিল ইউনিসেফের পক্ষ থেকে এই নতুন সতর্কবার্তা এল। সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক হেনরিয়েটা ফোর বলেছেন, চলতি বছর ১০ লাখ আফগান শিশু চরম পুষ্টিহীনতায় ভুগতে পারে। তাদের খাবার ও উপযুক্ত সেবার ব্যবস্থা না করা গেলে শিশুরা মারাও যেতে পারে।

রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের নিয়ে গতকাল সোমবার এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেই বৈঠকে এই সতর্কবার্তা উচ্চারিত হয়। হেনরিয়েটা ফোর বলেন, আফগানিস্তানের প্রায় এক কোটি শিশু মানবিক সহায়তা পেয়ে থাকে।

এই সহায়তার জেরেই জীবনযাপনের ব্যবস্থা হয় তাদের। আফগান শিশুদের সাহায্য করার কথা জানিয়ে আন্তর্জাতিক মহল ও বিশ্বের ধনী দেশগুলির প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

আগে আফগান সরকারকে বিভিন্ন দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থা এই সংক্রান্ত অর্থসাহায্য করেছে। কিন্তু তালিবান ক্ষমতায় আসার পর দেশটিকে সাহায্য দেওয়া বন্ধ করে দেয় আন্তর্জাতিক মহল। মূলত মানবাধিকার ও নারী অধিকার ইস্যুতে তালিবানের যে অবস্থান, তা বদলাতেই এই চাপ দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এর প্রভাব পড়ছে সাধারণ আফগানদের উপর, বিশেষ করে আফগান শিশুদের উপর।

এই পরিস্থিতিতে প্রয়োজনে তালিবান সরকারকে এড়িয়ে সেখানকার মানুষদের কাছে জরুরি সাহায্য পৌঁছে দিতে আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানগুলির প্রতি আহ্বান জানাল ইউনিসেফ। তবে এই পরিস্থিতিতে অতিরিক্ত ৬ কোটি ৪০ লাখ মার্কিন ডলারের মানবিক সহায়তা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে রাষ্ট্রসঙ্ঘ।

হেনরিয়েটা ফোর বলেন, চলতি বছরে প্রায় ছ’লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। এর অর্ধেকই নারী ও শিশু। যুদ্ধবিধ্বস্ত ও দরিদ্র দেশে কীভাবে কাজ করতে হয়, সেই অভিজ্ঞতা ইউনিসেফের রয়েছে। আর আফগানিস্তানে ৭০ বছর ধরে কাজও করছে সংস্থাটি। এ কারণে আমরা জানি, তারা জানে আফগান শিশুদের জন্য ঠিক কী প্রয়োজন

রাষ্ট্রসঙ্ঘের তরফে বৈঠকে আফগানিস্তানের সঙ্কট নিয়ে কথা বলেন। তিনিও জানান, আফগানিস্তানে তালিবানি রাজত্ব শুরু হওয়ার পরে এই সঙ্কট আরও বেড়েছে। এবং আসন্ন শীতের আগেই পরিস্থিতি খারাপ হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazsongbadsara1
© All rights reserved  2019 songbadsarakkhon
Theme Download From ThemesBazar.Com